একজন অকালের বাউল। যার মন চায় বাউল হতে কিন্তু পারেনা। তাই সে মনে মনে বাউল। বাউলের ছায়ার ভিতর নিজেরে রেখে, পাখীর উড়ার ভঙ্গি করে কোথায় যায় কিংবা কোথাও যেতে চায় বলে নিজের আঙিনায় ঘুরতে থাকে।

যে সদাই তার কোন গল্প থাকেনা কিংবা সে কোন গল্পে থাকতে চায় না, তাই সে অনেকের মধ্যে থেকেও একা। চারদিক নির্জন করে বসে থাকে সে নিজের ভিতর।


কল্পকান্ত সদাই’র জন্ম নাই, মৃত্যু্‌ও নাই।


“কল্পকান্ত সদাই ভাবে প্রেমের কী রুপ হয়
প্রেমের ভাবে ডুবতে রাজি, ডুবতে বড় ভয়”



কল্পকান্ত সদাই'র হাতে আর কত সময় আছে তা জানা নাই, তাই কল্পকান্ত দ্বারা প্রণীত সকল গান প্রকাশ করা হলো। এখান থেকে যে কেউ লেখা নিয়ে কথা ঠিক রেখে নতুন সুরে গাইতে পারবে অথবা যদি কেউ সুরের ধারণা নিতে চায় যোগাযোগ করলেই হবে।

আনন্দে বাঁচো।

- কল্পকান্ত সদাই

বৃহস্পতিবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৮


তোরে ছাড়া কেমনে বেঁচে রইরে প্রাণনাথ
তোরে ছাড়া কেমনে বেঁচে রই
বুকের ভিতর বরফ জমে করে হইচই রে প্রাণনাথ


ফুলের বনে ভোমর আসে রে প্রাণনাথ
ফুলের বনে ফুটে নানান ফুল
তোর সাথে পিরিত হইল ভাসাইয়া দু'কূল রে


আমার মনে আগুন জ্বলেরে প্রাণনাথ
আমার মনে খেলে নদীর ঢেউ
বুকের ভিতর তড়পড়ানি জানলোনারে কেউ রে


কল্পকান্ত সদাইর মনে তুইরে প্রাননাথ
কল্পকান্ত সদাই ভাবে তোরে
মনের ভিতর আগুন নিয়ে ডুব দেয় সাগরে রে




১২/০৪/১৮
ওল্ডহাম

রবিবার, ৮ এপ্রিল, ২০১৮

কালার বাঁশি বাঁজেরে



কালার বাঁশি বাঁজেরে
ও কালা বাঁজায় বাঁশি রাধার নাম ধরিয়ারে


ফুলেতে বসে ভোমরা
প্রেমেতে মঁজিয়া শুন্যে দেয় উড়া
ভোমরা ফুল হাসেরে
ও ফুল ঝরে যায়- শ্যাম পিরিতের দায়রে


নদীতে আসেরে তুফান
বুকেতে জড়াই ধরে ভুলিয়া মান
জলে নদী ভাসেরে
ও নদী শুকাইয়া যায়- শ্যাম পিরিতের দায়রে


মনেতে জ্বলেরে আগুন
রাধার প্রেমে মন বিকাইয়া লাগেরে দারুণ
কল্পকান্ত সদাইর মন
ও সদাই রাধার প্রেমে- যমুনাতে যায়রে




০৮/০৪/১৮
সুইন্টন